সোমবার, ২২ আগস্ট, ২০১৬

Alar Ligament Test

Alar Ligament Test

Purpose: To assess the integrity of the alar ligaments and thus upper cervical stability.
Test Position: Supine, hooklying.
Performing the Test: Place one hand on the occiput and use the other hand to palpate the spinous process of C2. Laterally flex or rotate the head to one side; you should feel the spinous process move to the opposite side. Repeat on the other side. Absence of the spinous process moving to the opposite side may indicate alar ligament injury. If you block the spinous process of C2 from moving, you may stress the ligament. You should encounter a firm end-feel in this case. Significant movement may indicate ligamentous injury.
Diagnostic Accuracy: r = .76 (“Construct validity of clinical tests for alar ligament integrity; an evaluation using magnetic resonance imaging”).
Importance of Test: Whenever a patient with neck pain as a result of trauma is being examined, you should check for alar ligament integrity. Without such testing, you could encourage a movement of the cervical spine that could damage the spinal cord. There are two alar ligaments. The distal portion of each attaches to the respective sides of the odontoid process of C2. The proximal portion attaches to the tubercle on the medial side of the respective occipital condyle. When you laterally flex or rotate the cranium to the opposite side, the atlas follows the plane of the cranium (due to ligamentous/capsular attachments). During the test, you will feel the spinous process of the axis (C2) move to the contralateral (opposite direction of the laterally flexed/rotated head), because as the proximal attachment of the alar ligament moves superiorly, the distal attachment must also move if the ligament is intact, so the spinous process is spun to the contralateral side (remember the spinal coupling that occurs int he cervical spine as well!). The alar ligament on the same side as the laterally flexed/rotated head becomes less stressed. According to Neumann, both alar ligaments are stressed during this test, but the contralateral one is stressed more. Absence of movement can indicate ligamentous instability. It should be noted that some people have a distal attachment of an anterior portion below the odontoid process or completely surpasses the odontoid process. These people may test positive for alar ligament instability. The alar ligament can have 3 directions of fiber orientation: craniocaudal, horizontal, and caudocranial. Due to this, it may be beneficial to stress the ligament in 3 planes (neutral, flexion, and extension) (“Clinical Testing for the Craniovertebral Hypermobility Syndrome”).

বুধবার, ১৭ আগস্ট, ২০১৬

www.Physioknowledgebd.com



শুরু হল আমার নতুন পথ চলা
www.Physioknowledgebd.com একটি শিক্ষা এবং গবেষণা মুলক ওয়েবসাইট
যেখানে ফিজিওথেরাপির বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।
তবে মুল প্রাধান্য পেয়েছে BSc in Physiotherapy পাঠ্যক্রম অনুসারে সাজান হয়েছে।
সবার কাছে দোয়া প্রারথি।

(ভুল থ্রুটি ক্ষমা দৃষ্টিতে দেখবেন)

http://www.physioknowledgebd.com/

মঙ্গলবার, ৯ আগস্ট, ২০১৬

পর্নোগ্রাফি আসক্তি



পর্নোগ্রাফি আসক্তি (ইংরেজি: Pornography addiction, Porn addiction বা Internet pornography addiction নামেও পরিচিত) হলো আসক্তির একটি প্রস্তাবিত মনোবৈজ্ঞানিক মডেল, যার সাহায্যে নেতিবাচক শারীরিক, মানসিক, সামাজিক অথবা আর্থিক পরিণতি ঘটা সত্ত্বেও, কোনো ব্যক্তির পর্নোগ্রাফি সংশ্লিষ্ট ভোগ্যপণ্যের ব্যবহার দ্বারা তাড়িত অমোঘ যৌন ক্রিয়াকলাপকে ব্যাখ্যা করা হয়। ইঙ্গিতনির্ভর প্রতিক্রিয়া পরীক্ষার মাধ্যমে সাইবারসেক্সের পারিতোষণ ও ক্রমশ আকর্ষণ শক্তিশালীকরণমূলক (যেমনঃ নেশা সৃষ্টি) বৈশিষ্টের প্রমাণ পাওয়া গেছে।
সমস্যাপ্রবণ ইন্টারনেট পর্নোগ্রাফি দেখা বলতে বোঝায় এমন কোন উপায়ে পর্নোগ্রাফি দেখা যেটি একজন ব্যক্তির জন্য ব্যক্তিগত বা সামাজিক দিক থেকে ক্ষতিকর এবং সমাজের অন্যান্য সদস্যদের সাথে মিথস্ক্রিয়ার জন্য বরাদ্দকৃত মূল্যবান সময় সেটি দেখার পেছনে ব্যয়িত হয়। আসক্ত ব্যক্তিরা হয়ত বিষণ্নতা, সামাজিক বিচ্ছিন্নতা, চাকরি হারানো, বেকারত্ব অথবা তাদের সামাজিক জীবনের উপর পর্নোগ্রাফির কুপ্রভাবের কারণে আর্থিক সংকটসহ নানাবিধ অসুবিধায় ভুগতে পারেন।

উপসর্গ ও রোগনির্ণয়

পর্নোগ্রাফি আসক্তি বা সমস্যাপ্রবণ পর্নোগ্রাফি দেখাকে রোগ হিসেবে শনাক্তকরণের জন্য কোন সার্বজনীনভাবে স্বীকৃত রোগ নির্ণয়ের মানদন্ড নেই। ২০১৩ সালে প্রকাশিতDiagnostic and Statistical Manual of Mental Disorders এর পঞ্চম সংস্করণে (DSM-5 এ) আচরণিক আসক্তি হিসেবে শুধুমাত্র সমস্যাপ্রবণ জুয়া খেলা নির্ণয়ের মানদন্ড নির্ধারণ করা হয়েছে। এটি অনেকটা মাদকাসক্তি নির্ণয়ের মানদন্ডের ধারাসমূহ যেমন, নির্দিষ্ট আচরণ সম্পর্কে সার্বক্ষণিক চিন্তাবিষ্টতা, আচরণ নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা কমে যাওয়া, মাদক সহনশীলতা, মাদক নির্ভরশীলতা, মাদক প্রত্যাহার উপসর্গ এবং প্রতিকূল মনোসামাজিক পরিণতি প্রভৃতির অনুরূপ।তবে অন্যান্য আচরণিক আসক্তি নির্ণয়ের জন্য রোগ নির্ণয়ের মানদন্ড নির্ধারণ করা হয়েছে, যেগুলো মূলত মাদকাসক্তি নির্ণয়ের প্রচলিত মানদন্ডের উপর প্রতিষ্ঠিত।

রোগ হিসেবে আইনগত মর্যাদা

পর্নোগ্রাফি দেখাকে মানসিক রোগ হিসেবে নির্ণয়ের যথার্থতার বিষয়কে ঘিরে তুমুল তর্কবিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে।

চিকিৎসা

অনলাইন সুরক্ষা

কিছু চিকিৎসক এবং সংস্থা ইন্টারনেট পর্নোগ্রাফি ব্যবহার নিয়ন্ত্রনের জন্য ইন্টারনেট কন্টেন্ট-কন্ট্রোল সফ্টওয়্যার ও ইন্টারনেট নজরদারী ব্যবহার করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

নোফ্যাপ (NoFap)

নোফ্যাপ (ইংরেজি: NoFap) হলো ২০১১ সালে প্রতিষ্ঠিত একটি অনলাইন কম্যুনিটি,যারা পর্নোগ্রাফি দেখা, হস্তমৈথুন করা কিংবা যৌনমিলন পরিহার করতে চান তাদের জন্য এটি একটি সাপোর্ট গ্রুপ হিসেবে কাজ করে।

গবেষণা

রোগের পরিব্যপ্তি

অধিকাংশ সাফল্যজনক গবেষণাতেই সুবিধাজনক নমুনা জনগোষ্ঠী ব্যবহার করা হয়। এমনি একটি গবেষণায় ৯২৬৫ জনের একটি সুবিধাজনক নমুনা জনগোষ্ঠী ব্যবহার করে জানা যায় যে এদের ১% ইন্টারনেট ব্যবহারকারী স্পষ্টতই সাইবারসেক্সে আসক্ত এবং ১৭% ব্যবহারকারীই সমস্যাপ্রবণ যৌন আসক্তি নির্ণয়ের মানদন্ডে উত্তীর্ণ হন। অর্থাত্ তারাক্যালিচম্যান যৌন আসক্তি স্কেলে গড় মানের প্রমাণ বিচ্যুতির চেয়ে এক পয়েন্ট বেশি স্কোর করেন। ৮৪ জন কলেজপড়ুয়া পুরুষের উপর করা একটি জরিপে দেখা যায় যে যারা পর্নোগ্রাফি ব্যবহার করেন তাদের ২০-৬০% লোকই এটিকে সমস্যাপ্রবণ মনে করেন। ইন্টারনেট আসক্তির উপর করা একটি গবেষণা নির্দেশ করে যে এই আসক্তির হার হয়ত ইউরোপীয় ও আমেরিকান জনগোষ্ঠীর মধ্যে ১.৫ থেকে ৮.২% শতাংশের মধ্যে ওঠানামা করতে পারে। ইন্টারনেট পর্নোগ্রাফি ব্যবহারকারীরা ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের অন্তর্ভুক্ত এবং দেখা গেছে ইন্টারনেট পর্নোগ্রাফি ব্যবহারই একমাত্র কার্যকলাপ যা অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ব্যবহারকারীকে অমোঘ আচরণের দিকে ধাবিত করে।

তথ্যসূত্র


রবিবার, ৭ আগস্ট, ২০১৬

Case study(Cardiopulmonary)




A 35-year-old known asthmatic man has just been admitted to the medical ward with a 2day history of fever, cough productive of sputum and left-sided chest pain.
PMH: asthmatic;
DH: salbutamol and beclothemasone via metered dose inhalers;
SH: computer programmer lives with wife;
O/E:
·         Temperature 39°C;
·         Tachypneic RR 30, SOBAR talking in clipped sentences, shallow breaths;
·         Auscultation: reduced breath sounds bi-basally, inspiratory crackles left lower lobe, faint monophonic expiratory wheeze left lower lobe; •
·         CXR: Patchy white shadowing LL zone;
·         ABGs: (FiO2 0.4) pH 7.48, PCO2 4.4, PO2 10.5, HCO3–25 BE -1.
What pathophysiology can be identified?
What are the underlying causal factors?

Physiotherapy treatment



CASE STUDY  SOLUTION
What pathophysiology can be identified?
  • ·      Acid-base disturbance: respiratory alkalosis with hypoxemia.
  • ·         Airflow limitation: expiratory wheeze.
  • ·         Impaired gas exchange: hypoxemia.
  • ·         Probable infection: pyrexia, productive of sputum, CXR shadowing.
  • ·         Impaired tracheobronchial clearance: retained secretions.
  • ·         Pain: pleuritic chest pain.
  • ·         Reduced lung volume: Reduced basal BS on auscultation ?bi-basal atelectasis on CXR, altered respiratory pattern.

What are the underlying causal factors?
  • ·   Acid-base disturbance: hypoxemia secondary to pulmonary infiltrate, probable infection, producing V/Q mismatch. RR raised to compensate for hypoxemia producing a fall in CO2. Renal compensation has not occurred.
  • ·  Airflow limitation: local airway inflammation producing narrowing or sputum-related obstruction.
  • ·   Impaired gas exchange: large pulmonary infiltrate producing an area of low V/Q ‘wasted perfusion’. Patient is unable to compensate for this by increasing RR. Collapse of lung units distal to site of infection will contribute to ongoing hypoxemia.
  • ·         Infection: probable respiratory infection, microorganism as yet unknown.
  • ·         Pain: pleuritis secondary to probable infection.
  • ·         Reduced lung volume: Reduced VT secondary to pain. Atelectasis of lung units distal to site of infection.

Physiotherapy treatment
  • ·         Acid-base disturbance: Positioning to relieve SOB, breathing control to normalize RR. Oxygen therapy (prescribed by doctor) optimize delivery with correct device, humidification.
  • ·         Airflow limitation: bronchodilator therapy, nebulized rather than MDI (prescribed by doctor).
  • ·         Impaired gaseous exchange: position patient to maximize V/Q.
  • ·         Probable infection: if possible send sputum specimen for cytology.
  • ·  Impaired tracheobronchial clearance: positioning to relieve SOB, mucociliary clearance techniques: ACBT +/–manual techniques, GAP.
  • ·         Pain: TNS, analgesia (prescribed by doctor).
  • ·      Reduced lung volume: adjunct to increase VT and assist expectoration, e.g. IPPB, adjunct to increase FRC and assist re-expansion of atelectasis, e.g. CPAP. NB caution should be exercised in acute stage to reduce risk of further air trapping. Advise patient on positioning to improve lung volumes and promote early mobilization.


বুধবার, ৩ আগস্ট, ২০১৬

Physiotherapy Test





AL MANAR LASER PHYSIOTHERAPY CENTER



AL MANAR LASER PHYSIOTHERAPY CENTER
(CENTER FOR BEST QUALITY MANUAL THERAPY)
PLOT: Umo, Block: Rosso, SATMOSJID ROAD (OPPOSITE TO GOVT PHYSICAL COLLEGE)
                   MOHAMMADPUR, DHAKA-1207 MOBILE:01754107018,01715013318


Treatment procedure:

[A] Assessement
  • Subjective assessment
  • Objective assessment

[B] Treatment plane:

Manual therapy:
  • Mobilization
  • Manipulation
  • Mckenzie Approch
  • Bobath Approch
  • Mulligan concept
  • Stretching
  • Strengthening  Etc
Electrotherapy:

  • Laser therapy
  • Cryo therapy
  • Ultrasound therapy
  • Inferential therapy
  •  Paraffin wax therapy
  • Short wave diatheramy
  • Electrical stimulation therapy
  • Infrared radiation
  • Transcutaneous electrical nerve stimulation
  • dry needling
  • Intermittent pelvic traction etc